গ্রুপ পর্ব শেষ হয়েছে। আজ শুরু হচ্ছে সেমিফাইনাল। বিশ্বকাপে বাকি মাত্র তিন ম্যাচ। এর আগে দেখে নিন এবার এখন পর্যন্ত কী কী রেকর্ড হলো—

ব্যক্তিগত সর্বোচ্চ

১৬৬ ডেভিড ওয়ার্নার, অস্ট্রেলিয়া-বাংলাদেশ, ট্রেন্ট ব্রিজ

১৫৩ জেসন রয়, ইংল্যান্ড-বাংলাদেশ, কার্ডিফ

১৫৩ অ্যারন ফিঞ্চ, অস্ট্রেলিয়া-শ্রীলঙ্কা, ওভাল

সেরা বোলিং

৬/৩৫ শাহিন আফ্রিদি, পাকিস্তান-বাংলাদেশ, লর্ডস

৫/২৬ মিচেল স্টার্ক, অস্ট্রেলিয়া-নিউজিল্যান্ড, লর্ডস

৫/২৯ সাকিব আল হাসান, বাংলাদেশ-আফগানিস্তান, সাউদাম্পটন

দলীয় সর্বোচ্চ

৩৯৭/৬ ইংল্যান্ড-আফগানিস্তান, ওল্ড ট্রাফোর্ড

৩৮৬/৬ ইংল্যান্ড-বাংলাদেশ, কার্ডিফ

৩৮১/৫ অস্ট্রেলিয়া-বাংলাদেশ, ট্রেন্ট ব্রিজ

দলীয় সর্বনিম্ন

১০৫ পাকিস্তান-উইন্ডিজ, ট্রেন্ট ব্রিজ

১২৫ আফগানিস্তান-দ. আফ্রিকা, কার্ডিফ

১৩৬ শ্রীলঙ্কা-নিউজিল্যান্ড, কার্ডিফ

২১০২১ প্রথম রাউন্ডের মোট রান।

৬২৫ প্রথম রাউন্ডের মোট উইকেট।

২২ সবচেয়ে বেশি ছক্কা ইংল্যান্ডের এউইন মরগানের, ১৭টিই আফগানিস্তানের বিপক্ষে।

১৯ সবচেয়ে বেশি ডিসমিসাল অস্ট্রেলিয়ার অ্যালেক্স ক্যারির।

১১ সবচেয়ে বেশি ক্যাচ নিয়েছেন ইংল্যান্ডের জো রুট।

১৯২ সবচেয়ে বড় জুটি অস্ট্রেলিয়ার ডেভিড ওয়ার্নার ও উসমান খাজার। বাংলাদেশের বিপক্ষে দ্বিতীয় উইকেটে।

এ পর্যন্ত যত রেকর্ড

ওয়ানডেতে ইনিংসে সবচেয়ে বেশি ছক্কা। আফগানিস্তানের বিপক্ষে ইংলিশ ব্যাটসম্যানরা মেরেছেন ২৫টি ছক্কা।

ওয়ানডেতে ইনিংসে সবচেয়ে বেশি ছক্কা এউইন মরগানের। আফগানিস্তানের বিপক্ষে ১৭টি ছক্কা মেরেছেন ইংল্যান্ড অধিনায়ক।

এক বিশ্বকাপে সবচেয়ে বেশি সেঞ্চুরি ভারতের রোহিত শর্মার (৫)। ওয়ানডে রেকর্ডও এটি।

এক বিশ্বকাপে সবচেয়ে বেশি ৫০ ছাড়ানো ইনিংসে শচীন টেন্ডুলকারের পাশে বসেছেন বাংলাদেশের সাকিব আল হাসান (৭)। ওয়ানডে রেকর্ডও এটি।

প্রথম খেলোয়াড় হিসেবে এক বিশ্বকাপে ৫০০ রান ও ১০ উইকেট সাকিব আল হাসানের।

বিশ্বকাপে টানা পঞ্চাশোর্ধ্ব ইনিংস খেলার রেকর্ডে অস্ট্রেলিয়ার স্টিভ স্মিথের পাশে বসেছেন ভারতের বিরাট কোহলি (৫ ইনিংস)।

বিশ্বকাপে টানা ৪ উইকেট নেওয়ার রেকর্ডে পাকিস্তানের শহীদ আফ্রিদির পাশে বসেছেন ভারতের মোহাম্মদ শামি (৩ ম্যাচ)।

এক বিশ্বকাপে সবচেয়ে বেশি উইকেট নেওয়ার রেকর্ডে গ্লেন ম্যাকগ্রার পাশে বসেছেন অস্ট্রেলিয়ার মিচেল স্টার্ক।

বিশ্বকাপে এক ম্যাচে সবচেয়ে বেশি রান দেওয়ার রেকর্ড রশিদ খানের। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে আফগান লেগ স্পিনার ৯ ওভারে দিয়েছেন ১১০ রান।