স্টিভ স্মিথ- ডেভিড ওয়ার্নার ফিরেছিলেন বিশ্বকাপেই। বাকি ছিলেন শুধু ক্যামেরন ব্যানক্রফট। গত বছর মার্চে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে বল টেম্পারিং কাণ্ডে নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে তিনজনের শেষ জন হয়ে অস্ট্রেলিয়া দলে ফিরলেন সেই ব্যানক্রফটও। চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ইংল্যান্ডের বিপক্ষে মর্যাদার অ্যাশেজ সিরিজের জন্য ঘোষিত দলে জায়গা পেয়েছেন তিন খেলোয়াড়ই।

অ্যাশেজের দল ঘোষণা করেছে অস্ট্রেলিয়া। বল টেম্পারিং কাণ্ডে নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে দলে ফেরা ব্যাটসম্যান-ত্রয়ী ডেভিড ওয়ার্নার, স্টিভেন স্মিথ ও ক্যামেরন ব্যানক্রফট জায়গা করে নিয়েছেন স্কোয়াডে।
স্টিভ স্মিথ- ডেভিড ওয়ার্নার ফিরেছিলেন বিশ্বকাপেই। বাকি ছিলেন শুধু ক্যামেরন ব্যানক্রফট। গত বছর মার্চে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে বল টেম্পারিং কাণ্ডে নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে তিনজনের শেষ জন হয়ে অস্ট্রেলিয়া দলে ফিরলেন সেই ব্যানক্রফটও। চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ইংল্যান্ডের বিপক্ষে মর্যাদার অ্যাশেজ সিরিজের জন্য ঘোষিত দলে জায়গা পেয়েছেন তিন খেলোয়াড়ই।

পাঁচ ম্যাচ টেস্ট সিরিজের জন্য কাল ১৭ সদস্যের দল ঘোষণা করেছে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া (সিএ)। অধিনায়কের দায়িত্বে যথারীতি থাকছেন উইকেটরক্ষক-ব্যাটসম্যান টিম পেইন। তবে পেইনের বিকল্প উইকেটরক্ষক-ব্যাটসম্যান হিসেবে দলে জায়গা হয়নি দুর্দান্ত বিশ্বকাপ কাটানো অ্যালেক্স ক্যারির। তাঁর জায়গায় নেওয়া হয়েছে ম্যাথু ওয়েডকে। অনেকের মতেই বিশ্বকাপের সেরা উইকেটরক্ষক ছিলেন ক্যারি। তবে ম্যাথু ওয়েড গত এক বছরে অস্ট্রেলিয়ার ঘরোয়া ক্রিকেটে এমন রানবন্যা বইয়েছেন, নির্বাচকেরা তাঁর ফর্মকে অগ্রাহ্য করতে পারেননি। স্মিথ ও ওয়ার্নার ফেরায় বাদ পড়েছেন সর্বশেষ শ্রীলঙ্কা সিরিজে সেঞ্চুরি করা জো বার্নস ও কুর্তিস প্যাটারসন।

দলে ছয় পেসার রেখেছেন নির্বাচকেরা। মিচেল স্টার্ক, প্যাট কামিন্স তো আছেনই, সঙ্গে যুক্ত হয়েছেন পুরোনো যোদ্ধা পিটার সিডল। ২০১৬ সালে সাদা পোশাকে শেষ খেলা পেসার জেমস প্যাটিনসনও ডাক পেয়েছেন। দলে ফিরেছেন জশ হ্যাজলউড। পেস বোলিং অলরাউন্ডার হিসেবে মিচেল মার্শের সঙ্গে রয়েছেন অভিষেকের অপেক্ষায় থাকা মাইকেল নেসের। পেস নির্ভর বোলিং আক্রমণ গড়ার মাশুল দিতে হয়েছে স্পিন বিভাগকে। একমাত্র বিশেষজ্ঞ স্পিনার হিসেবে দলে জায়গা পেয়েছেন নাথান লায়ন। স্পিন বোলিং অলরাউন্ডার হিসেবে আছেন মার্নাস লাবুশানে। লায়নের স্পিনের সঙ্গে লাবুশানের লেগ স্পিন দিয়ে বৈচিত্র্য রাখার চেষ্টা করেছেন অস্ট্রেলিয়ার নির্বাচকেরা।

ইংল্যান্ডের মাটিতে এজবাস্টনে আগামী ১ আগস্ট শুরু হবে অ্যাশেজ সিরিজের প্রথম টেস্ট।

অ্যাশেজের জন্য ঘোষিত অস্ট্রেলিয়া দল

টিম পেইন (অধিনায়ক), ডেভিড ওয়ার্নার, স্টিভেন স্মিথ, উসমান খাজা, মিচেল স্টার্ক, ক্যামেরন ব্যানক্রফট, প্যাট কামিন্স, মার্কাস হ্যারিস, জশ হ্যাজলউড, ট্রাভিস হেড, মারনাস লাবুশানে, নাথান লায়ন, মিচেল মার্শ, মাইকেল নেসের, পিটার সিডল, জেমস প্যাটিনসন, ম্যাথু ওয়েড।